BIGtheme.net http://bigtheme.net/ecommerce/opencart OpenCart Templates
সংবাদ শিরোনাম
Home / প্রথম পাতা / জনস্বার্থে দ্রুত রাস্তা করে দেওয়ায় সীতাকুণ্ড পৌরমেয়র মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম এর বিরুদ্ধে মিথ্যাচার

জনস্বার্থে দ্রুত রাস্তা করে দেওয়ায় সীতাকুণ্ড পৌরমেয়র মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম এর বিরুদ্ধে মিথ্যাচার

নিজস্ব প্রতিবেদক, সীতাকুণ্ড টাইমস ঃ
সম্প্রতি কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় সীতাকুন্ড পৌর মেয়র আলহাজ্ব বদিউল আলম এর বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ তুলে একটি নিউজ করা হয়েছে।
এই ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মেয়র বদিউল আলম বেশ আশাহত এবং মর্মাহত। তিনি বলেন , তাঁর দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে যে অপবাদ তিনি পাননি, আজ ক্ষমতায় যাবার লোভে একটি দুষ্ট চক্র তাঁর বিরুদ্ধে এই সব অপপ্রচার করছেন। উনি জনগনের সেবা করার জন্য, সীতাকুণ্ডের উন্নয়নের জন্য মেয়র হয়েছেন, দুর্নীতি করে সম্পদ বানানোর জন্য নয়।

পৌর মেয়র মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম আরও জানান তিনি কোন অর্থ আত্মসাৎ এর মত কোন কাজ করেনি। জনগনের বৃহত্তর স্বার্থে তিনি কোথাও কোথাও টেন্ডারের বাহিরেও রাস্তা করতে হয়েছে । তাছাড়া যে প্রকল্প নিয়ে অভিযোগ উঠেছে সেই প্রকল্পের কোন টাকা এখনও উত্তোলন করা হয়েনি। টাকা আমার পকেটে যাওয়া দুরের কথা অভিযুক্ত প্রকল্পের কোন টাকাও উত্তোলন করা হয়নি অথচ সংবাদে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমাকে হেয় করার অপচেষ্টা চালিয়েছে।
জনগনের কাজ করতে গিয়ে আজ একটি চক্র দুদকের কাছে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে সমাজে আমার মানসম্মান ক্ষুন্ন করতে মরিযে হয়ে উঠেছে। চক্রটি অভিযোগ দিয়েও ক্ষেন্ত হননি তারা পরিকল্পিত ভাবে গুটি কয়েক পত্রিকায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা নিউজ প্রকাশ করায়। অথচ মিথ্যা অভিযোগটিও এখনও তদন্তনাধীণ ।
জানা যায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মেয়র বদিউল আলম এর বড় ছেলে লন্ডন প্রবাসী তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ desicloud,nodesup tuliptech এর কর্ণধার মাসুম সামজাদ তাঁকে গত একবছরে রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন ২১ লক্ষ ৭৩ হাজার টাকা।

৪ বছর মেয়র,২০ বছর কাউন্সিলর/মেম্বার আর ৩০ বছর সীতাকুন্ড পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি থাকার পরও তিনি রেমিটেন্স নির্ভর। মাসে ৪০,০০০ টাকা সম্মানী আর ১০,০০০ টাকা মুক্তিযোদ্ধা ভাতার পুরোটাই সমাজের গরীব , দুঃখীদের বিলিয়ে দেন তিনি। মাসুম সামজাদ জানান আমার আব্বা এক জন মুক্তিযোদ্ধা আর আমি রেমিটেন্স যোদ্ধা। দূর্নীতিবাজদের আশ্রয় পশ্রয় না দেওয়ায় আমার আব্বুর বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে চক্রটি। তাছাড়া সামনে পৌর নির্বাচন আসছে তাই চক্রটি অপপ্রচারে লিপ্ত। তাছাড়া আমার আব্বু বিপুল ভোটে এবারও পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় ঈর্ষান্নিত হয়ে চক্রটি মিথ্যা তথ্য দিয়ে দুদক ও সাংবাদিকদের কাজে লাগিযে অপপ্রচারে লিপ্ত। আমি বিপদগামীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলছি সীতাকুণ্ড পৌরবাসী উন্নয়নে পৌরমেয়রকে সহযোগীতা করুন। মিথ্যা বানোয়াট তথ্য প্রদান থেকে বিরত থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *